All books

বুলুগুল মারাম (০ টি হাদীস)

পবিত্রতা ১-১৫০

পরিচ্ছেদ ৫৫.

সময় নির্ধারণ ব্যতীত মোজার উপর মাসাহ করার বিষয়ে সুস্পষ্ট বর্ণনা

৬৬

বুলুগুল মারাম

অধ্যায় : পবিত্রতা

হাদীস নং : ৬৬


وَعَنْ أُبَيِّ بْنِ عِمَارَةَ - رضي الله عنه - أَنَّهُ قَالَ: يَا رَسُولَ اللَّهِ، أَمْسَحُ عَلَى الْخُفَّيْنِ? قَالَ:
«نَعَمْ» قَالَ: يَوْماً? قَالَ: «نَعَمْ»، قَالَ: وَيَوْمَيْنِ? قَالَ: «نَعَمْ»، قَالَ: وَثَلَاثَةً? قَالَ: «نَعَمْ، وَمَا شِئْتَ» أَخْرَجَهُ أَبُو دَاوُدَ، وَقَالَ: لَيْسَ بِالْقَوِيِّ

উবাই বিন্ ‘ইমারাহ (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ

তিনি (নাবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) -কে) আরয করলেন, “হে আল্লাহর রসূল! আমি কি মোজার উপর মাসাহ করতে পারি? তিনি বললেন, ‘হাঁ;’ তিনি (সাহাবী) বললেন, ‘দু দিন পর্যন্ত করতে পারি?’ তিনি বললেন, ‘হাঁ’ তিনি (সাহাবী) বললেন, ‘তিনদিন পর্যন্ত করতে পারি?’ তিনি বললেন, ‘হাঁ’ আর তুমি যে কদিন ইচ্ছে কর।” আবূ দাঊদের এ বর্ণনা মজবুত নয়। [৮২]

[৮২] যঈফ। আবূ দাঊদ (১৫৮), শাইখ নাসিরুদ্দীন আলবানী যঈফ আবূ দাঊদ (১৫৮) গ্রন্থে একে দুর্বল বলেছেন। মুহাদ্দিস আযীমাবাদী তাঁর আওনুল মা‘বূদ (১/১৩৪) গ্রন্থে বলেন, বর্ণনার অজ্ঞতার কারণে এটি শক্তিশালী নয়। তাছাড়া ইয়াহইয়া বিন আইয়ূবকে নিয়ে অনেক বিতর্ক রয়েছে। ইবনুল কাইয্যিম তাঁর তাহযীবুস সুনান (১/২৬৬) গ্রন্থে বলেন, ইয়াহইয়া বিন আইয়ূবকে নিয়ে অনেক বিতর্ক রয়েছে। আর আবদুর রহমান, মাহাম্মাদ বিন ইয়াযীদ ও আইয্যূব বিন ক্বাতন সকলেই অপরিচিত বর্ণনাকারী্।